Sudip Ghoshal

মুটপুজো 🍁 সুদীপ ঘোষাল
📌
কালোদা বলেন,মুটপুজো দিয়ে শুরু হয় লবান এর তোড়জোড়।সাদা ধুতি পরে আর একটা কাস্তে লিয়ে যাব মাঠে। জমির ঈশানকোণ থেকে কেটে লোবো আড়াইমুঠো ধানগাছের গোছা।লাল চেলিতে জড়িয়ে ঠাকুরঘরে রেখে পুজো হবে।
মুটপুজোতে অংশগ্রহণ করে চাষজীবি পরিবারগুলো।

ভুলকু্ড়ির বিদূর পান বলতেন,মুটপুজোতে কার্তিক সংক্রান্তির ভোরে প্রতিটি কৃষিজীবি পরিবারের একজন সদস্য স্নান সেরে শুদ্ধ বস্ত্র পরিধান করে তাদের ধানের জমিতে হাজির হয়।ওই সদস্যটি সঙ্গে নিয়ে যায় একটি কাস্তে,সুপারি,সন্দেশ,দুর্বাঘাস,একটি ধূপকাঠি।

পুরুলের সিধুকাকা বললেন,যে জমিতে নবান্নের জন্য ধান লাগানো হয় সেই জমির ঈশান কোণে কৃষিজীবি পরিবারের লোকটি হাজির হয়ে আড়াই গোছ ধান কেটে একটি লাল চেলি কাপড়ে বেঁধে বাড়ির ঠাকুরঘরে নিয়ে আসে।
বেলুনের কালিচরণ ভট্টাচার্য বলেন, বাড়িতে আসলে গৃহকত্রী তার পা জল দিয়ে ধুইয়ে দেয়।তারপর শঙ্খধ্বনি, উলুধ্বনি দিতে দিতে ঠাকুরঘরে এসে আড়াইগাছ ধানকে মুট হিসাবে রাখা হয়। তারপর পুরোহিত ডেকে পুজো করা হয়। উপোস থেকে পুজোর কাজ সেরে প্রসাদ খাওয়া হয়।

FA-5.jpg

সুদীপ ঘোষাল

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *