অপেক্ষার চাঁদ — সুকান্ত মজুমদার

sahityalok.com
যার কন্ঠে অবিভাজিত প্রেম দিনভর
যে অপরিমিত জীবন জীঞ্জাসা
যে চেতনে আত্মলীন সর্বেসর্বা, 
হবেনা উদ্যায়ী কিংবা লঘু ইস্তাহার। 
যে উত্তাপে,যে আলোতে দহন নেই 
সে চাঁদ আসবে কিনা? 
কিছুটা জানবার অঘোষিত ইচ্ছায়
তৃষিত জিঞ্জাসারা সাদা গোলাপ হয়ে
পাপড়ি মেলে সারারাত হেমন্তের সুখে
শিশির সিক্ত চোখে চেয়ে রইল, 
আগুন মনের অভিবাদন মুক্ত হয়েও
দূষণ উৎসাহীদের সোচ্চার কোলাহল
অনুচ্চারিত অশ্রাব্য শব্দনাদের রক্তচক্ষু  
যেমন তেমন স্পর্ধাতীত সদলবল –
বারংবারের নিপীড়িত প্রত্যাখ্যান সিদ্ধ
আলো উৎসারি বিসাদ কুয়াশায় 
মুখ ঢাকে, সে মৌনতা পান করে।
ধিরলয়ে আকাশ অন্ধকারের মেঘ হয়
অন্ধকার ঝরে পড়ে ঘরে ও জীবনে, 
শতাব্দীর যন্ত্রণা যন্ত্রের মত নিদ্রালু হয়
অপেক্ষা বুকে জমে ওঠে। 
অন্ধকার আরোও একটু গাড় হয়
রাতের রতি কীট পতঙ্গ ঘরে বসন্ত আনে
সব ভুলে থাকা প্রাসঙ্গিক হয়ে ওঠে
চলন গমন হীন দৃষ্টি সুখের মদিরা। 
   

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *