Dr. Taimur Khan

পাঁচটি ম্যাগাজিন পঞ্চধারার সমন্বয়।
প্রয়াস এই সময়
🍁
সাহিত্যপ্রেমী মানুষের ভাবনার প্রতিবিম্ব চতুর্থ বর্ষ পঞ্চম সংখ্যা ‘প্রয়াস এই সময়'(১৪২৯) উৎসব সংখ্যা মনে রাখার মতো একটি পত্রিকা। বাংলার ও বাংলার বাইরের ২০০ এর অধিক কবির কবিতা এবং ২৫ এর অধিক ছোটগল্প নিয়ে প্রকাশিত হয়েছে। দুটি প্রবন্ধ লিখেছেন পবিত্র সরকার ও পার্থজীৎ গঙ্গোপাধ্যায়। বড়গল্প লিখেছেন সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়, ত্রিদিব চট্টোপাধ্যায়, চুমকি চট্টোপাধ্যায়, ষষ্ঠীপদ চট্টোপাধ্যায়, জয়তী রায়, হেমন্ত জানা, রবীন বসু, লিপিকা বিশ্বাস, চৈতালি মুখার্জি, পৃথা মণ্ডল। ছোটগল্প লিখেছেন সঞ্জয় কর্মকার, শুভশ্রী সাহা, দিলীপকুমার খাটুয়া, প্রতিমা ভট্টাচার্য মণ্ডল, সীমাসোম বিশ্বাস, অলোক ঘোষ, অনুশ্রী চ্যাটার্জী, কুহু ভট্টাচার্য, মহুয়া মিত্র, গৌরীবালা মণ্ডল, স্বপ্না ঘোষাল, কল্যাণী রায়, প্রতীপ বোস, মৌমিতা ঘোষ সেনগুপ্ত, শ্যামা নন্দী। কবিতায় জয় গোস্বামী থেকে, ভবানীপ্রসাদ মজুমদার, অজিত বাইরী, রতনতনু ঘাঁটি, রুপা মজুমদার, রাজা ভট্টাচার্য প্রমুখ বহু কবি। অনেক ভালো লাগা কবিতার সমাবেশ। যোগাযোগ পিনাকী গাঙ্গুলী, উত্তর-মৌড়ি, খটির বাজার, আন্দুল মৌড়ি, হাওড়া-৭১১৩০২, চলভাষ ৯১২৩৮৫১৬৮৯, মূল্য উল্লেখ নেই ।
নন্দিনী অন্য ভাবনা
🍁
‘নন্দিনী অন্য ভাবনা'(১৪২৯) কুড়ি বছরের ১৪তম সংখ্যা অসাধারণ আয়োজন নিয়ে প্রকাশিত হয়েছে। লিটিল ম্যাগাজিনের জগতে এই পত্রিকাটির প্রতিটি সংখ্যাই মনে রাখার মতো। বিশেষ করে গবেষণালব্ধ প্রবন্ধগুলি খুবই মূল্যবান। শিল্পী সোমনাথ হোরকে নিয়ে স্মরণ ও মূল্যায়ন করেছেন মৃণাল ঘোষ ও অংশুমান দাশগুপ্ত। কিংবদন্তি শিল্পীর জীবন ও সৃষ্টিকর্মের বিস্তৃত পরিচয় পাওয়া যাবে। অক্ষয় কুমার দত্তের ‘বাষ্পীয় রথ’ বিষয়ে আলোকপাত করেছেন রামকৃষ্ণ ভট্টাচার্য। শিক্ষাবিদ শ্যামাপ্রসাদকে নিয়ে লিখেছেন আশীষ লাহিড়ী। কলকাতার হোমিওপ্যাথি চিকিৎসায় মহেন্দ্রলাল সরকারের ইতিহাস তুলে ধরেছেন অর্পণ পাল। শিক্ষাবিজ্ঞান ও দর্শন বিষয়ে লিখেছেন অশোক মুখোপাধ্যায়। পল ফেয়েরাবেণ্ড প্রসঙ্গে বিজ্ঞান ও দর্শনের তুলনা মূলক আলোচনা করেছেন চিরঞ্জীব শূর। এরিক হবসবমের জীবনচেতনার ইতিহাস তুলে ধরেছেন প্রিয়দর্শী চক্রবর্তী। পশ্চিমী মতাদর্শ ও ভারতীয় ইতিহাস চর্চার ক্ষেত্রে যে ফারাক তা সামাজিক ও অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপটে তুলে ধরেছেন অক্রূর সরদার। অশোক রুদ্র সম্পর্কে লিখেছেন অপরাজিতা মুখোপাধ্যায়। এছাড়া গণতন্ত্র, কৃষক আন্দোলন, লোকসাহিত্য, আঞ্চলিক সাহিত্য, কিণাঙ্ক নাট্যদল ইত্যাদি বিষয়ে কলম ধরেছেন শান্তভানু সেন, শৈলেন মিশ্র, সমুদ্র রায়, ড.আদিত্য মুখোপাধ্যায়, ব্রতীন চট্টোপাধ্যায়, মনীষা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রমুখ। কবিতায় আছেন অমিতাভ নাগ, সঞ্জয় মুখোপাধ্যায়, সুপ্রভাত মুখোপাধ্যায়, জবা ভট্টাচার্য, গৌতম সাহা, মানবেন্দ্র মুখোপাধ্যায়। বিবিধ বিভাগে বিজ্ঞান, ভ্রমণ, গ্রন্থ আলোচনা, স্মরণ ইত্যাদি বহু বিচিত্র বিষয়। সংখ্যাটি অবশ্যই সংগ্রহযোগ্য। যোগাযোগ: বিক্রমজিৎ মণ্ডল, লায়েকবাজার, বোলপুর, বীরভূম৭৩১২০৪, চলভাষ ৯৪৭৪৬৪৫৫৯৫,মূল্য ৩০০ টাকা।
সম্প্রীতি
🍁
ষষ্ঠ বর্ষ প্রথম সংখ্যা ‘সম্প্রীতি'(২০২২) খুব সুন্দর একটি সংখ্যা। ঝরঝরে রুচিপূর্ণ পত্রিকাটির লেখা নির্বাচন বেশ মনোযোগ আকর্ষণ করে। শতাধিক কবিতায় বহু নামকরা কবি এই সংখ্যায় লিখেছেন। প্রবন্ধে আছেন কামরুজ্জামান, অচিন্ত্য মারিক, তানিশা ব্যানার্জি, ইয়াসিন পাঠান, তাপস মুখোপাধ্যায়, বিপাশা চক্রবর্তী, শংকর ব্রহ্ম, অসিতকুমার পাল। ছোটগল্পে আছেন অলভ্য ঘোষ, তপন তরফদার, শাজাহান কবীর, মানসী রায় চট্টোপাধ্যায়, কেয়া চক্রবর্তী, উজ্জ্বল চট্টোপাধ্যায়, শ্বেতা সরকার, শ্রাবন্তী ভট্টাচার্য, মীনাক্ষী মণ্ডল, দীপঙ্কর সাহা, সুমা আইচ হাজরা। রম্যরচনায় দেবাজীব সরকার। ভ্রমণ কাহিনিতে কমল ঘোষ। এছাড়া ছড়া ও অণুগল্প লিখেছেন এই সময়ের উল্লেখযোগ্য কবি-লেখকরা। সুনীল মাজির কবিতা খুব ভালো লাগলো: ‘শ্মশান ঘিরে গজিয়ে ওঠে ফৌজি তাঁবু’ পড়তে পড়তে কবির মুখটি মনে পড়ল। যোগাযোগ শাজাহান আলি, কলাইকুণ্ডা মার্কেট কমপ্লেক্স, শালিকা, খড়্গপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর-৭২১৩০৪, চলভাষ ৭৬০২৫০৭৬৬০, মূল্য ১০০ টাকা।
কবিতার আড্ডা
🍁
শারদ সংকলন ‘কবিতার আড্ডা'(২০২২) পঁচিশ বছরের পত্রিকাটি প্রতিটি কবিতাপ্রেমী মানুষের কাছেই একটি আকর্ষণীয় সংখ্যা। দিগন্ত মান্নার একটি মুক্ত গদ্য ছাড়া প্রায় ৫০টি কবিতা নিয়ে সংখ্যাটি তার পূর্ণতা ঘোষণা করেছে। প্রতিটি কবিতাই বাছাই করা এবং যথাযথ মার্জিন রেখেই পরিবেশন করা হয়েছে। উল্লেখযোগ্য কবিরা হলেন অজিত বাইরী, অর্ণব পণ্ডা, বরুণ চক্রবর্তী, সংঘমিত্রা চক্রবর্তী, তাজিমুর রহমান, গৌতম ভট্টাচার্য, নূর মহম্মদ, অভীককুমার দে, নৃপেন চক্রবর্তী, উৎপল বন্দ্যোপাধ্যায়, অমৃত মাইতি, সেলিম মল্লিক, সুজিত ভৌমিক, হরপ্রসাদ সাহু, শুভঙ্কর দাস।, আবু রাইহান, পুষ্প সাঁতরা, কৃষ্ণপ্রসাদ মাজী, মনোতোষ আচার্য, সুপ্রভাত মেট্যা, নীলোৎপল জানা, পৃথ্বীরাজ মণ্ডল, কৃতিসুন্দর পাল প্রমুখ। পত্রিকার শেষ কবিতায় কৃতিসুন্দর পাল লিখেছেন: “কাছাকাছি বসি না আজকাল, ভয় হয়;/ ভালোবাসার মোড়কে হিংস্রতা ছুটে আসে।” মাত্র দুটি পংক্তিতেই সময়ের পরিচয়টি তুলে ধরেছেন। পত্রিকার প্রথম কবিতায় অজিত বাইরী লিখেছেন: “জীবনে কিছু কথা থেকে যায় অকথিত;/ ফুটবো ফুটবো করেও ফোটে না।” জীবন সম্পর্কে এই দার্শনিক উচ্চারণ আমাদের সত্যান্বেষী করে। যোগাযোগ: কৃতিসুন্দর পাল, আবাসবাড়ি, তমলুক, পূর্ব মেদিনীপুর-৭২১৬৩৬, চলভাষ :৮১১৬৮৪৯৪৬০, মূল্য ৫০ টাকা।
বাইপাস
🍁
‘বাইপাস'(সেপ্টেম্বর ২০২২) পদ্য ও মুক্ত গদ্যের প্রথম সংখ্যা ক্ষীণ কলেবর হলেও বেশ মেধাবী পরিচয় দিয়েছে। লেখা নির্বাচনে নতুনত্ব আছে। সর্বত্রই গতানুগতিকতা পরিহার করার প্রচেষ্টা ভালো লেগেছে। তাই কবিতাগুলি ভিন্ন ধারার বলেই মনে হল। স্বপ্ননীল রুদ্র লিখেছেন “সাঁতার ফেলে রেখে হাঁসেরা উঠে এল/ নির্জন পাড়ের ঢালুছায়ায়/ ইতস্তত কাঁপা পাখনা থেকে জল—/ যেমন পুরোহিত স্মিত ছিটায়”। ছবিটি পরিচিত হলেও এক ভিন্নতর পাঠ অভিজ্ঞতার সম্মুখীন করে। সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায় লিখেছেন “ধুলোয় ধূসর হয়ে গেলে/ পায়ের নিচে রোদ শুকিয়ে যায়/ রাতজাগা হাঁটে কোথাও নিরন্তর/ নিরিবিলি উপমা বাতাস/ তার বুকে প্রজাপতি ওড়ে।”
বাস্তবও তখন পরাবাস্তবের দিকে নিয়ে যায় আমাদের। এ রকমই প্রায় কুড়িটির মতো কবিতা পাঠকের কাছে এক নতুন দিগন্ত খুলে দেয়। যোগাযোগ সোমনাথ বেনিয়া, হোয়াটস্ আপ ও ফোন :৮৬৯৭৬৬৮৮৭৫, মূল্য ১০ টাকা।
🌳
তৈমুর খান

 

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *